» চৌহদ্দি সুনির্দিষ্ট নয় : জুয়েল দেব এর উপন্যাস এখন চট্টগ্রাম ঐতিহ্যের বইমেলায়

প্রকাশিত: ০৪. অক্টোবর. ২০১৯ | শুক্রবার

বিন আরফানঃ বর্তমান তরুণ কথা সাহিত্যিকদের মধ্যে আমার প্রিয় একজন লেখক “জুয়েল দেব”। ঐতিহ্য প্রকাশ করেছিলো তার একটি উপন্যাস। আমি এতোটাই কৃপণ নিজ টাকায় বই কিনি না বললেই চলে। তথাপিও নামের আকর্ষণে বইটার প্রথম ক্রেতা ছিলাম। বইটা পড়তে বসে শেষ কখন যে হয়ে গেলো বুঝতেই পারিনি। এতো বিশাল উপন্যাসকে ছোটগল্পের মতো শেষ করতে পারবো, ভাবতেই পারিনি।

আমার মতো কৃপণরাও বইটা কিনতে পারেন, মনে হবে আপনি সেরা বইটা কিনেছেন।

 

একজন লেখক প্রকাশকের প্রতি কতোটা কৃতজ্ঞতাপূর্ণ হয়, তার একটা নজির তুলে ধরলাম, লেখকের ভাষ্য হতে।  লেখক জুয়েল দেব তার ফেসবুক টাইমলাইনে লেখেন,

 

“অন্য একটা লেখা শুরু করেছিলাম। হঠাৎ এক মধ্যরাতে মনে হল অন্য একটা গল্প মাথায় খুব যন্ত্রণা করছে, ‘চৌহদ্দি সুনির্দিষ্ট নয়’। তারপর চট্টগ্রাম আর সাতকানিয়া আসা যাওয়া করতে করতে বেশ কয়েকটা পৃষ্ঠা লেখা হল। এক মধ্যরাতে মনে হল উপন্যাস লেখা অনেক কঠিন কাজ। সবাইকে দিয়ে এই কঠিন কাজটা সম্ভব না। আমার থামা উচিত। জিয়া ভাইকে বলাতে উনি নাঈম ভাইকে পান্ডুলিপি দিলেন। নাঈম ভাই জিয়া ভাইকে বললেন, আমি যেন মোবাইলে মেসেজ দিয়ে তাঁকে ফোন করি। নাঈম ভাইকে ফোন করতে তিনি জানালেন এই বইয়ের একটা কপিও বিক্রয় না হলে তাঁর কোন সমস্যা নাই। তিনি ছাপাবেন। ঢাকা গিয়ে নাঈম ভাইয়ের সাথে দেখা করলাম। জনাব আরিফুর রহমান নাঈম। ঐতিহ্য প্রকাশনীর প্রকাশক। অনেক বড় একটা প্ল্যাটফর্ম থেকে আমার প্রথম নভেলা প্রকাশিত হয়েছে। আমি কখনো চিন্তাও করি নাই। নাঈম ভাইয়ের সাথে এরপর আর কখনো দেখা হয় নাই। আমি এমনিতেই অসামাজিক ধরণের মানুষ। ২০১৮ বইমেলায় বইটা প্রকাশিত হয়েছিল। ওই বইমেলাতেই গিয়েছি হাতেগোণা দুইদিন। তাও দুইবারই ৯টার পরে যাওয়াতে ঢুকতেও পারি নাই। বইটা কেমন বিক্রয় হয়েছে সেটাও জানার ইচ্ছা হয়নি। নাঈম ভাইকে কখনো জানানো হয় নাই। প্রকাশক হিসেবে উনার প্রতি আমার আজীবন কৃতজ্ঞতা। কখনো কখনো মাঝরাতে ঘুম ভেঙে গেলে মনে হয় জীবনের চৌহদ্দি আসলেই সুনির্দিষ্ট নয়।
চট্টগ্রামে গতকাল থেকে শুরু হয়েছে ঐতিহ্য’র বইমেলা। শিল্পকলা একাডেমিতে সাত দিন ধরে চলবে। সেখানে ‘চৌহদ্দি সুনির্দিষ্ট নয়’ও থাকবে।”

 

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১১৭ বার

Share Button